এক হালি চাঁদ আর পূর্ণিমা কাব্য

১)
পূর্ণিমাতে বনে গেলাম,
চন্দ্র দেখে টাশকি খেলাম!

২)
নাক উঁচিয়ে শুধালে মেয়ে,
“কিইবা তোমার আছে?”
অন্য কিছু থাক বা না-থাক
চাঁদটা আমার আছে।
৩)
মেঘের ফাঁকে, চন্দ্রটা আজ
ভীষণ রকম একা!
পূর্ণিমাতেও আঁধারি তাই
যায়না তারে দেখা।
৪)
মাঝ রাত্রির নীলাভ আলোয়,
দীঘির জলে নামি।
রাশি রাশি জোসনা ঝরে,
চন্দ্রাহত আমি!

moonlight night

ইদানিং কেন যেন লিখতে পারছিনা। মাথায় কোন ছন্দ আসছেনা, কোন গল্প নেই, ছড়া নেই, কিস্যু নেই।  শুন্য শুন্য মনে হচ্ছে নিজেকে।