ফেসবুকারের রকমফের

 

 

কারো কাছে ফেবু মানেই, দিন-রাতভর চ্যাটিং
অন্য দিকে নাই মনোযোগ, অনলাইনেতেই ডেটিং
কেউ সারাদিন সারাটিরাত, পোস্ট দিয়ে যায় শত
আপডেট তার সবসময়ই লাইভ নিউজের মতো
কারো কাছে কষ্ট করে, লেখাটা আনফেয়ার
তাই ওনারা এটা-ওটা সদাই করেন শেয়ার
কেউবা আবার এটায় সেটায় সবাইরে দেন ট্যাগ
তাদের ট্যাগের চাপায় পড়ে পাবলিকে খায় র‍্যাগ
এক প্রজাতি সবকিছুতেই খুঁজে বেড়ান ইস্যু
দিন-রাতভর ইভেন্ট শেয়ার, বাদ পড়েনা কিছু
কারো কাছে ফেবু মানেই লাইক-বন্যায় ভাসা
বুকের ভেতর একটুখানি Celeb হওয়ার আশা
কেউ সারাদিন যুদ্ধ করেন, কেউবা আবার চাষা
অমুক ক্ল্যাশ আর তমুক ভিল এর ইনভাইটেশন আসা।
ডাক-ফেসে কেউ সেলফী তোলে, Retrica আর Candy তে
কেউবা আবার চেক-ইন মারে, KFC আর Handi তে
বার্সা-ভক্ত করেন দাবি , রিয়েল খেলে কুতকুত
এই ভালনা ওইটা ভাল, কেউবা করেন খুঁতখুঁত।
“অ্যাড মি” জাতি সদাই সজাগ,  অ্যাড মি পিলিচ ফ্রেন্ড
কারো কাছে ফেবুই হলো লাইফ-স্টাইল, ট্রেন্ড
কারো মাথায় অন-লাইনেতেই ব্যাবসা করার ধ্যান
হাজার টাকা ধান্দা করার, বিলি করেন জ্ঞান
আর্টিস্ট ভাইয়া ছবি এঁকে ফেবুয় আগে পোস্টায়
কেউবা খুঁজেন কি ভুল আছে, নেলা-নেমের পোজটায়।
এক প্রজাতি খবর ছড়ান, সাথে থাকে link
আরেক জাতি Scroll করেন, without blink !
নায়ক-কবি-ছড়াকারের  ভক্ত মানেই Fame
কারো কাছে সবকিছুই-ই Absurd আর Lame !
এরূপ লাখো ফেসবুকারের খবর নিতে চান?
ডাব্লিউ ডাব্লিউ ডাব্লিউ ডট ফেসবুকেতে যান।

ছোঁয়াছোঁয়ি

ছোঁব নাকি আজ তোর?
টসটসে গাল!
লজ্জায় অবনত
মুখখানা লাল।

কাছে আয়, ছোঁব আজ
পাপড়ি চোখের!
হাসির ওই টোলখানা
মিষ্টি মুখের।

চট করে ছুঁয়ে দেই?
হাতদুটো তোর!
ছোঁয়াছোঁয়ি খেলাতেই
রাত্রি দুপুর।

একটু বোঁচকা নাকে
ঝিকমিকি নথ
একবারই ছোঁব Just,
করছি শপথ।

আলগোছে ছুঁয়ে দেই?
একগোছা চুল!
যার ফাঁকে চিকমিকে
কানের ওই দুল।

সবশেষে ছুঁতে চাই
ঠোঁটের ওই তিল!
খুঁজে নেব ঠিকঠাক
Baby just chill.

:::::: ফেইসবুকিয় নামরঙ্গ ::::::

‘বেকুব শুভ’ ‘অ্যাঞ্জেল মানব’
‘দুষ্ট পরী’ ‘রাতের দানব’
‘অ্যালোন মানুষ’ ‘মেঘের পালক’
‘প্যারিস মফিজ’ ‘নগর বালক’
‘ড্রিমলেস্ কাফি’ ‘রাজ্যের প্রজা’
‘রাতের পাখি’ ‘মহারাজা’
‘একাকী পথিক’ ‘মেঘলা আকাশ’
‘খোলা জানালা’ ‘খোলা বাতাস’
‘বৃষ্টি প্রেমিক’ ‘তোতা পাখি’
‘নির্জন পথে’ ‘আমি একাকী’
‘বিস্কুট পাগলা’ ‘অভিমানী কন্যা’
‘ক্লান্ত পথিক’ ‘ইনোসেন্ট বন্যা’
‘দিনের আলো’ ‘রাতের তারা’
‘একলা পথিক’ ‘সর্বহারা’
‘আলেয়ার আলো’ ‘অচেনা শিশির’
‘সোনালী সন্ধ্যা’ ‘অজানা নিশির’
‘সুশীল সমাজ’ ‘ভাঙা কুলা’
‘নাম ভুলে গেছি’ ‘পাজী পোলা।
……………………………….

Blah Blah Blah Blah Blah

মন খারাপের রাত

আজকে আমার
মন খারাপের রাত
ধরতে গিয়েও
ফিরিয়ে নিলাম হাত
আজকে আমি 
সময় নিয়েই কাঁদবো 
দস্যি তোকে
চোখের জলেই বাঁধবো 
……………………
……………………
আজকে আমার 
মন খারাপের রাত 

ডেডিকেটেড রোমিও

প্রিয়তমা,
একলা হেঁটে তপ্ত রোদে
বৃষ্টিতে রোজ ঠায় দাঁড়িয়ে
অনেক রাত্রি জাগার পরে
আমার পাশে তোমায় পাওয়া ।

তাই আমি আজ ভয় করিনা
ককটেলের ঐ তীব্র আগুন
ভয় করিনা, পিকেটারের
মারমুখো ভাব, চরম ধাওয়া ।

পাল্টে যাক আজ জিওগ্রাফী
আমার প্রিয় এই চেহারার
এরপরেও ভয় করিনা
অবরোধ আর বুলেট বোমার।

ছুরি-চাপাতির সামনে গিয়ে
পেতে দেব বুক আগ বাড়িয়ে
ডেডিকেটেড এই রোমিওটার 
সবকিছুই আজ শুধুই তোমার ।

– রোমেল

জাপান যাব

বেকার আমি নাস্তা সারি
বন-কলা আর চা-পানে
দালাল মামা এসে ধরে
নিয়ে যাবে জাপানে

তিন লাখেতেই ডিরেক্ট জাপান
লাইফটা হবে ফার্স্ট ক্লাস
কষ্ট করে জাপানী ভাষায়
তুলতে হবে এ প্লাস

মামা বুঝায়, আমিও বুঝি
শিখতে হবে জাপানী
দাতাভাঙ্গা সব উচ্চারণে
যতোই আসুক হাঁপানি

নীলক্ষেতের ওই ৩০ দিনের
জাপানী ভাষার বই থেকে
আকি তাকি ভাষা শিখি
চুলের গোঁড়ায় তেল মেখে

ভাষা শিখে করি এবার
মামার সাথে দেখা
হেসে বলে দালাল মামা
এবার ছাড়েন টেকা।

পেয়ে টাকা দালাল মামা
দেয়নাতো আর পাত্তা
বুঝিনি আমি ধোঁকাবাজির
বিশাল একটা খাত তা।

জাপানী ভিসার অপেক্ষাতেই
দিন কেটে যায় রোজ
অতি আপন দালাল মামার
যায়না পাওয়া খোঁজ

বেকার জীবন আজও আমার
হয়না হওয়া জাপানী
সঙ্গি আজও বন কলা রোজ
একটু সাথে চা-পানি।